জনতা ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম।

জনতা ব্যাংক একাউন্ট খোলার নিয়ম।

জনতা ব্যাংকে একাউন্ট কিভাবে খুলবেন জানুন। আর্থিক লেনদেনের জন্যে ব্যাংক একাউন্টের প্রয়োজন হয়৷ এক্ষেত্রে কোন ব্যাংকে একাউন্ট খোলা যায় এই নিয়ে অনেকেরই প্রশ্ন থাকে। আবার একাউন্ট খোলার নিয়ম এক এক ব্যাংকে এক এক রকম হয়। কোন কোন ব্যাংকে আবার সুযোগ রয়েছে ঘরে বসে অনলাইনে একাউন্ট খোলার। তেমনি দেশের খ্যাতনামা ব্যাংক জনতা ব্যাংকে একাউন্ট খুলার কি কি নিয়মাবলি রয়েছে তা সম্পর্কে আজ আমরা জানব।

কি কি একাউন্ট খোলা যায় –

একেক ব্যাংকের একাউন্টের প্রকারভেদ এবং খোলার নয়ম আলাদা। গ্রাহকদের সেবা প্রদান করতে জনতা ব্যাংকও বিভিন্ন রকম একাউন্ট সুবিধা দিয়ে থাকে। এক্ষেত্রে আপনি জনতা ব্যাংক হতে লোন নিতে চাইলেও আপনার একটি একাউন্ট থাকা চাই। তাই জনতা ব্যাংকে কি ধরণের একাউন্ট থাকলে লোন নেয়া যায়। বা কোন একাউন্টের কি কি সুবিধা অসুবিধা আছে তা জানা খোলার আগে জানা ভালো। জনতা ব্যাংকে আপনিঃ

১. স্থায়ী আমানতের জন্যে একাউন্ট খুলতে পারেন।
২.অব্যক্তিক একাউন্ট।
৩. ব্যক্তিক বা পারসোনাল একাউন্ট।
৪. বেসরকারি -সরকারি অথবা আধা-সরকারী প্রতিষ্ঠানের একাউন্ট খোলা।

উক্ত প্রকারভেদ অনুযায়ী আপনি আপনার প্রয়োজনমত একাউন্ট খুলতে পারেন। এগুলোকে সেভিংস একাউন্ট হিসেবেই ধরা হয়। সেভিংস একাউন্ট খুলতে আপনাকে যে যে ডকুমেন্টস জমা দিতে হতে পারে তাহলো-

সেভিংস একাউন্টঃ

সেভিংস একাউন্ট সুবিধা সব ব্যাংকই দিয়ে থাকে। তবে আপনার ব্যবসায়ীক কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্যে আপনি কোন ব্যাংক হতে খুলবেন তা আপনার পছন্দ।

যে যে ডকুমেন্টস লাগবে-

১.আপনার ন্যাশনাল আইডি কার্ডের ফটো কপি বা পাসপোর্ট এর ফটোকপি।
২.আপনার ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
৩.যাকে নমিনি করবেন তার আইডি কার্ড ও ছবি।
৪. আপনি যে ব্যবসার সাথে জড়িত তার ট্রেড লাইসেন্স।
৫. প্রয়োজনে আপনার ইউটিলিটি বিল।

উক্ত ডকুমেন্টস সমেত আপনি ব্যাংকে গেলে ব্যাংক হতে আপনাকে অফিসার একটি ফর্ম দিবে। যেখানে আপনি আপনার সঠিক তথ্য দেয়ার মাধ্যমে একাউন্ট খুলতে সক্ষম হবেন।
অথবা আপনি যদি কাজ এগিয়ে রাখতে চান তাহলে ফর্মটি নিচের লিংক হতে ডাউনলোড করুন।

https://www.jb.com.bd/about_us/aof

ফর্ম ডাউনলোড হলে তা ফ্রিন্ট আউট করে নিন এবং আপনার সঠিক তথ্য সমূহ ফর্মে অন্তর্ভুক্ত করুন। তারপর বর্ণিত কাগজপত্র সহকারে আপনার কাছের কোন ব্যাংক শাখায় জান। সেখানে আপনি একাউন্ট খুলতে পারবেন।
তবে এক্ষেত্রে জেনে রাখা ভালো, জনতা ব্যাংক একাউন্ট খুলতে আপনার কাজ হতে ৫০০/১০০০ টাকা জামানত রাখবে। তাই সাথে আপনি টাকা নিয়ে যাবেন।  এই টাকা আপনার একাউন্ট যতদিন রাখবেন তত দিন থাকবে।

হেল্পলাইনঃ

উপরোক্ত তথ্য যদি আপনার জন্যে যথেষ্ট না হয় তাহলে আপনি জনতা ব্যাংক কাস্টমার কেয়ারে কল করে এই নিয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন৷ কল করার পর প্রতিনিধিকে জানাবেন আপনি একাউন্ট খুলতে চান। এক্ষেত্রে আপনাকে কি কি করতে হবে৷ তারা সুন্দর করে বুঝিয়ে দিবে। নিম্নে জনতা ব্যাংকের হেল্প লাইন নাম্বার গুলো দেয়া হলো-

১. 955624549.
২.9566020
৩.9560093 9560027-30
৪.9558613
৫.9566141-43

উল্লেখিত নাম্বার গুলোর যে কোন একটিতে কল করলে আপনি জনতা ব্যাংকের হেল্পলাইন সেবা পাবেন। তাই দেরি না করে যোগাযোগ করে আপনার একাউন্ট খোলা নিয়ে বিস্তারিত জেনে নিন।

উপসংহারঃ

জনতা ব্যাংকের একাউন্ট খোলা নিয়ে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করলাম। এখানের তথ্য গুলো বুঝতে অসুবিধা হলে আপনি চাইলে ব্যাংক শাখায় সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন।

mahmuda tinni

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *